মেইকআপ সামগ্রীর বিকল্প ব্যবহার

ভ্রমণে অনেক মেইকাপ সামগ্রী না নিয়ে বরং কয়েকটা দিয়েই বিভিন্ন কাজ করুন।

সাজসজ্জা-বিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ১০টি মেইকআপ সামগ্রী সম্পর্কে এখানে জানানো হল যা বেড়াতে গেলে সঙ্গে নিতে পারেন।

বিবি ক্রিম: উন্নতমানের বিবি ক্রিম ব্যবহার করুন। প্রাইমারের সঙ্গে ব্যবহারে তা ফাউন্ডেশনের মতো কাজ করে।

লিপস্টিক: লিপস্টিকের বহুমুখী ব্যবহার করতে পারেন। ঠোঁটে ব্যবহারের পাশাপাশি এটা ব্লাশ হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। সামান্য লিপস্টিক নিয়ে তা গালে ব্লাশের মতো ও চোখের উপরে শ্যাডোর মতো ব্যবহার করতে পারেন।

আই ভ্রু পেন্সিল: পানিরোধী ও ছড়িয়ে যায় না এমন আই ভ্রু পেন্সিল ভ্রুতে ব্যবহারের পাশাপাশি কাজল হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন।

পেট্রোলিয়াম জেলি: এটা নানাভাবে ব্যবহার করা যায়। ভ্রু জেল, চ্যাপ স্টিক এবং হাইলাইটার হিসেবে। চোখের পাতার উজ্জ্বলতা বাড়াতে এটা ব্যবহার করা যায়।

ব্রোঞ্জার: ব্রোঞ্জার চেহারায় ভিন্ন আঙ্গিক যোগ করে। উন্নত বাদামি রংয়ের ব্রোঞ্জার আই শ্যাডো হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার: এটা চোখের নিচে ও অন্যান্য যে যে স্থান উজ্জ্বল দেখাতে চান সেখানে ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার ব্যবহার করুন।

স্যাটিন লিপস্টিকের উপরে এটা ব্যবহার করে ম্যাটভাব আনতে পারেন। সামান্য পরিমাণে এই পাউডার ‘ড্রাই শ্যাম্পু’ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

মাস্কারা: এটা তরল লাইনার হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। টেনে লাইনার দিতে চাইলে সঙ্গে বাঁকানো তুলি রাখুন।

বিউটি ব্লেন্ডার: অনেকগুলো ব্রাশ সঙ্গে না রেখে বরং বিউটি ব্লেন্ডার রাখতে পারেন। বিবি ক্রিম থেকে শুরু করে ব্রোঞ্জার, ব্লাশ সুন্দরভাবে ব্যবহার করতে এটা সাহায্য করে। এতে কম সময়েই কাজ হয়ে যায় এবং পরিষ্কার করার সময়ও বাঁচে।

গোলাপ জল: মেইকআপ শুরুর আগে গোলাপজল টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

এটা অনেকটা সেটিং স্প্রে’র মতো কাজ করে। ফলে দেখতে সুন্দর ও মসৃণ লাগে।

মেইকআপ তোলার ওয়াইপ্স: মেইকআপ তুলতে, মুখ পরিষ্কার রাখতে ও ত্বকের যত্ন নিতে এটা অবশ্যই সঙ্গে রাখবেন।
সুত্র: বিডিনিউজ২৪.কম