যৌনমিলনে রাজি না হওয়ায় মডেল খুন

ছবি: সংগৃহীত

শারীরিক সম্পর্কে রাজি না হওয়ায় তরুণ এক মডেলকে হত্যা করেছে তারই সহপাঠী বন্ধু। পুলিশের কাছে আটক হওয়ার পর এমনটাই জানিয়েছে মোজাম্মেল সাঈদ (১৯) নামের ওই তরুণ। গত সোমবার ভারতের মুম্বাইয়ের মালাদ এলাকায় ঘটেছে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা।

পুলিশের বরাত দিয়ে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, মানসী দীক্ষিত (২০) নামের ওই মডেল একজন উচ্চাকাঙ্খি অভিনেত্রী ছিলেন। মানসী রাজস্থানের বাসিন্দা ছিলেন। তবে কর্মসূত্রে মুম্বাইতে থাকতেন। মোজাম্মেলের সঙ্গে একই ক্লাসে পড়তেন তিনি।

গত সোমবার মুম্বাইয়ের মোজাম্মেলের বাড়িতে যান মানসী। সেসময় তাকে শারীরিক সম্পর্ক করতে বলে মোজাম্মেল। তাতে মানসী রাজি না হওয়ায় রাগের মাথায় চেয়ার তুলে তার মাথায় আঘাত করে মোজাম্মেল। এতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন মানসী।

এরপর মানসীর দেহ স্যুটকেসে বন্দি করে ক্যাব বুকিং করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান মোজাম্মেল। পথে নির্জন রাস্তায় স্যুটকেসটি ফেলে পালিয়ে যান তিনি। পরে সেই ক্যাবচালক স্যুটকেস দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দিলে মোজাম্মেলকে বাড়ি থেকে আটক করা হয়।

হত্যার দায় স্বীকার করে মোজাম্মেল জানায়, সংজ্ঞাহীন মানসীকে দেখে তিনি ভয় পেয়ে যান। কারণ তখন তার মা বাড়ি চলে আসতে পারত। ফলে দেহ স্যুটকেসে ভরে সে বিমানবন্দরে উদ্দেশে রওনা হন। পরে নির্জন রাস্তা পেয়ে সেখানে মানসীর দেহ ভর্তি স্যুটকেসটি ফেলে রেখে পালিয়ে যান।

পুলিশ জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত হাতে যা প্রমাণ এসেছে তা খতিয়ে দেখছেন তারা।